বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৮:১৬ অপরাহ্ন

গরু ব্যবসায়ীকে অপহরনের পর ৯৯৯ কল করে উদ্ধার

লালমনিরহাট প্রতিনিধি::

আদিতমারী উপজেলায় মামলা তুলে নিতে বাদীর ছেলে মাসুদ পারভেজ মাসুমকে আটক করার অভিযোগ উঠেছে। পরে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে উদ্ধার পান সেই ব্যবসায়ী।

উদ্ধার হওয়ার পর শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) রাতে নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তাসহ বিচার চেয়ে আদিতমারী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ী মাসুদ পারভেজ মাসুম উপজেলার সাপ্টিবাড়ি ইউনিয়নের পর্বদৈলজোর গ্রামের মিয়ার উদ্দিন ওরফে মেহের আলীর ছেলে।

অভিযোগে জানা গেছে, গরুর খামার ও গরুর ব্যবসা করে সংসার চালাচ্ছেন মাসুদ পারভেজ মাসুম। দেড় মাস আগে তার প্রতিবেশী মৃত মোজাহার আলীর ছেলে আব্দুর রহমান, মোকাব্বেল ও জয়নাল আবেদীন গংরা মাসুদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে জমি দখলের চেষ্টা করে। এ ঘটনায় মাসুদের বাবা মিয়ার উদ্দিন ওরফে মেহের আলী বাদী হয়ে আদিতমারী থানায় দুইটি মামলা দায়ের করেন। যা বর্তমানে আদালতে বিচারাধিন।

এ মামলায় শাস্তিভোগের আশঙ্কায় মামলা তুলে নিতে বাদী ও তার ছেলে ব্যবসায়ী মাসুদ পারভেজ মাসুমকে চাপ দিতে থাকেন আসামিরা। এরই জেরে ব্যবসায়ী মাসুদ পারভেজ মাসুম গরু কিনে গাড়িতে করে বাড়ি ফিরলে বাড়ির পাশে আব্দুর রহমান গংরা তাকে আটক করে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দেয়। মামলা তুলে না নিলে তাকেসহ গরু ভর্তি গাড়িও গায়েব করার চেষ্টা করে। অবশেষে জীবন বাঁচাতে হটলাইন ৯৯৯ নম্বর ফোন করে সহায়তা চাইলে পুলিশ গিয়ে ব্যবসায়ী মাসুদ পারভেজ মাসুমকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে। এ সময় আব্দুর রহমান গংরা পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেয়ে পালিয়ে যায়।

এতেই থেমে থাকেনি দখলবাজ গ্রুপ। ওই দিন রাতে ব্যবসায়ী মাসুদ স্থানীয় ভেলাবাড়ি বাজারে এলে আব্দুর রহমান গংরা ভারাটে সন্ত্রাসী দল নিয়ে বাজারে মহড়া প্রদর্শন করে। বিষয়টি বুঝতে পেয়ে আত্মগোপন করেন ব্যবসায়ী মাসুদ পারভেজ মাসুম। মামলা তুলে না নিলে মাসুমকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায় সন্ত্রাসীরা। এতে নিজের ও পরিবারের সদস্যদের জীবনের শঙ্কায় রয়েছে বলেও অভিযোগ করেন ব্যবসায়ী মাসুম।
এ ঘটনায় নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) দিনগত রাতে আট জনের নামসহ অজ্ঞাত আরো ৫/৭ জনের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ব্যবসায়ী মাসুদ পারভেজ মাসুম।

ব্যবসায়ী মাসুম বলেন, দখলবাজ আব্দুর রহমান গংরা আমার বাড়িতে হামলা ভাঙচুর করে জমি দখলের চেষ্টা করেছে। এ নিয়ে মামলা করায় তারা আমাকে সপরিবারে হত্যার পরিকল্পনা করছে। বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির পাশ থেকে আমাকে আটকের চেষ্টা করে কিন্তু পুলিশ আসায় আমাকে ছেড়ে পালিয়ে যায়। রাতে আবারো বাজারে তল্লাশি করেছে। দেখা পেলে আমাকে হয়তো তারা মেরে ফেলত। পরিবার নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে দাবি করেন তিনি।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি/তদন্ত) গুফামুল ইসলাম মন্ডল বলেন, ৯৯৯ নম্বরে ফোন করায় পুলিশ গিয়ে ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করেছে। তার দেওয়া অভিযোগটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Nazmul Hasan